২ মে, অনলাইন ডেস্কঃ ঘুমানোর অন্যতম অনুষঙ্গ হলো বালিশ। আর বালিশ যদি আরামদায়ক না হয় তাহলে রাতের ঘুম যে হারাম হয়ে যাবে এটাই স্বাভাবিক। আকার ও তুলার মানভেদে আমাদের দেশে একটি বালিশের দাম দুইশ থেকে সাধারণত হাজার টাকার মধ্যে হয়ে থাকে। তবে নেদারল্যান্ডের এক ফিজিও থেরাপিস্ট একটি বালিশ তৈরি করেছেন যার দাম ধরা হয়েছে ৫৭ হাজার মার্কিন ডলার অর্থাৎ বাংলাদেশি টাকায় যার দাম পড়বে ৪৫ লাখ ৫৬ হাজার টাকা!

থিস ভ্যান ডার হিস্ট নামের এই ফিজিও থেরাপিস্ট গত পনের বছর পরিশ্রম করে এই বালিশটি তৈরি করেছেন। বালিশটি তৈরিতে ব্যবহার করা হয়েছে জগদ্বিখ্যাত মালবেরী রেশম, মিশরের তুলা, ডাচ মেমরি ফোম, চব্বিশ ক্যারেট গোল্ড ফেবরিক এবং বালিশটির চেইন তৈরিতে ব্যবহার হয়েছে সাড়ে বাইশ ক্যারেটের নীল রত্ন।

বালিশটি তৈরি করা প্রসঙ্গে থিস ভ্যান বলেন, ‘একজন ফিজিও থেরাপিস্ট হিসেবে আমি আমার রোগীদের সবসময় ভালো বালিশ ব্যবহারের পরামর্শ দিই। কিন্তু কার জন্য কোন বালিশটি উপযোগী তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যায়। কারণ মানুষের শরীরের প্রত্যেকটা অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ ভিন্ন ভিন্ন রকমের। এমনকি তাদের শোয়ার ধরণও আলাদা। সুতরাং প্রত্যকের উপযোগী বালিশ যে আলাদা হবে এটাই স্বাভাবিক। ফলে আমি এমন একটি বালিশ তৈরি করতে চেয়েছি যা যে কোনো ধরণের মানুষের জন্যই উপযোগী ও অত্যন্ত আরামদায়ক হবে।

অতি সূক্ষ্ম মাপজোকের মাধ্যমে উন্নতমানের রোবোটিক মিলিং যন্ত্র ব্যবহার করে বালিশটি তৈরি করা হয়েছে। সুতরাং এটি যেকোনো মানুষের জন্যই উপযোগী। এছাড়া এটি এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যে, চাইলেই আপনি এটি আপনার সুবিধামতো যেকোনো জায়গায় নিয়ে যেতে পারবেন।

বালিশের দাম শুনে অনেকেই হয়ত ভাবছেন একটি বালিশ এত দাম দিয়ে কে কিনবে? তাদের উদ্দেশ্য থিস ভ্যান বলেছেন, ‘এই পৃথিবীতে এমনো মানুষ রয়েছে যারা এক রাতের খাবারের জন্য দুই মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করে বা বিশ দিনের বিশ্ব ভ্রমণের জন্য চৌদ্দ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করে অথবা একটি বেল্টের জন্য আধা মিলিয়ন মার্কিন ডলার ব্যয় করতে কার্পণ্য করে না। মূলত এই মানুষগুলোই আরামের জন্য একটি বালিশের পিছনে মাত্র ৫৭ হাজার মার্কিন ডলার ব্যয় করতে একটুও দ্বিধা করবে না।’

বালিশটির ত্রিমাত্রিক ছবি ইতিমধ্যে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। তাছাড়া আগামী মাসে দুবাইতে হোম ইন্টেরিয়র মেলায় বালিশটি প্রদর্শনের জন্য রাখা হবে। আয়োজক কর্তৃপক্ষ ধারণা করছে মেলায় বালিশটি হবে অন্যতম আকর্ষণীয় বস্তু।

Share

আরও খবর