১ এপ্রিল, অনলাইন ডেস্কঃ নিউইয়র্কের গুগেইনহেম মিউজিয়ামে ১৮ ক্যারেট সোনা দিয়ে তৈরি একটি কমোড বসানো হয়েছে। মিউজিয়ামের পাঁচ তলার একটি বাথরুমে এই কমোডটি বসানো হয়েছে। সাধারণ দর্শকরাই এই কমোডটি ব্যবহার করতে পারবেন। কিন্তু সোনার এই কমোড নিয়ে তো কোনো ঝুঁকি নেওয়া যায় না। তাই বাথরুমের দরজার বাইরে কমোড পাহারা দেওয়ার জন্য সবসময়ে একজন নিরাপত্তাকর্মীও মোতায়েন থাকবেন। শুধু তাই নয়, বাথরুমে ব্যাগ নিয়েও কেউ ঢুকতে পারবেন না। প্রত্যেকবার বাথরুম ব্যবহারের পরে নিরাপত্তারক্ষীরা ভিতরে ঢুকে দেখে নেবেন কমোড অক্ষত আছে কি না। মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ এখনও কমোডের মূল্য নিয়ে মুখ না খুললেও শোনা যাচ্ছে এই কমোডের দাম প্রায় ২০ মিলিয়ন ডলার।

এদিকে কমোডের খবর ছড়িয়ে পড়তেই অবশ্য মিউজিয়ামের অন্যান্য জিনিস ছেড়ে বাথরুমের বাইরে লম্বা লাইন দিয়েছেন দর্শকরা। হাজার হোক, সোনার কমোড। তা ব্যবহারের সুযোগ আর কে ছাড়তে চায়! মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ অবশ্য এই কমোডটিকেও একটি শিল্পকর্ম বলেই দাবি করছেন। যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘আমেরিকা’।

Share

আরও খবর