৭ জানুয়ারি, ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ সংঘাতপূর্ণ সেনেগালের দক্ষিণে কাসামানস এলাকায় এক হামলায় ১৩ জন নিহত হয়েছে।

হাসপাতালের কর্মীরা জানিয়েছেন, কয়েকজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে এবং অন্যদের শিরশ্ছেদ করা হয়েছে। নিহতরা সবাই তরুণ।

এ হামলা কে বা কারা চালিয়েছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। তবে সরকারের সঙ্গে কাসামানসের ডেমোক্র্যাটিক বাহিনীর (এমএফডিসি) দীর্ঘদিন ধরে সংঘাত চলে আসছে। কাসামানসের এমএফডিসি অনেক দিন ধরে স্বাধীনতার দাবি জানিয়ে আসছে। আর একে কেন্দ্র করে কয়েক হাজার লোক নিহত হয়েছে।

সেনেগালের সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, সম্প্রতি এমএফডিসির দুই সদস্য কারাগার থেকে মুক্তি পেয়েছে। এই ঘটানার সাঙ্গে তাদের যোগসূত্র থাকতে পারে। তবে স্থানীয় গণমাধ্যমের খবর, কাঠ সংগ্রহের সময় ওই তরুণদের ওপর হামলা চালায় এমএফডিসির প্রতিপক্ষরা।

এক সময় পর্যটন নগরী হিসেবে সমৃদ্ধ ছিল কাসামানসে। সেনেগালের রাজধানী ডাকার ও কাসামানসের মাঝখানে রয়েছে গাম্বিায়। কাসামানসেতে খ্রিষ্টান সম্প্রদায়সহ নানা উপজাতিদের বসবাস। এর উত্তরাঞ্চলের তিনটি এলাকায় আধিপত্য রয়েছে মুসলিমদের। ২০১৪ সালের পর থেকে সরকার ও কাসামানসের ডেমোক্র্যাটিক বাহিনীর মধ্যে এই বিরোধ চলে আসছে।

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন

Share

আরও খবর