১৯ ডিসেম্বর, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মাধ্যমিক শিক্ষার উন্নয়নে বাংলাদেশকে ৫১০ মিলিয়ন ডলার আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে দাতা সংস্থা বিশ্বব্যাংক। বাংলাদেশি মুদ্রায় এর পরিমাণ প্রায় চার হাজার ৮০ কোটি টাকা।

মঙ্গলবার বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ‘সেকেন্ডারি এডুকেশন ফর রেজাল্ট’ প্রকল্পের আওতায় এই অর্থ সহায়তা অনুমোদন দিয়েছে সংস্থাটির পরিচালনা পর্ষদ।

এ থেকে ১ কোটি ৩ লাখ শিক্ষার্থী লাভবান হবে বলে আশা করছে সংস্থাটি।

‘সেকেন্ডারি এডুকেশন ফর রেজাল্ট’ প্রকল্পের আওতায় থাকবে ষষ্ঠ থেকে দ্বাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থীরা। শিক্ষা পদ্ধতির মানোন্নয়ন, শিক্ষা গ্রহণ, শিক্ষাপ্রাপ্তি এবং শিক্ষার্থীদের ঝরে যাওয়া রোধে এই অর্থ ব্যবহৃত হবে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। এই পরিকল্পনায় মেয়ে শিশু ও দরিদ্র জনগোষ্ঠীর শিক্ষার বিষয়ে বিশেষভাবে জোর দেওয়া হয়েছে।

প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ, পাঠ্যসূচি আধুনিকীকরণ, শিক্ষা ব্যবস্থাপনা এবং পরীক্ষা পদ্ধতির সংশোধন করাও হবে । পাশাপাশি শিক্ষকদের জবাবদিহিতার বিষয়েও জোর দেওয়ার কথা বলা আছে।

এ প্রকল্পের কো-টিম লিডার সৌরভ দেব ভাট জানান, গ্রামের স্কুলগুলোতে দক্ষ শিক্ষকের অভাব রয়েছে, বিশেষ করে ইংরেজি, গণিত এবং বিজ্ঞান বিষয়ে। এই প্রকল্প যোগ্য শিক্ষকদের পেশার প্রতি আকর্ষিত করে, তাদের উন্নয়ন ঘটাবে এবং তাদের এই পেশায় ধরে রাখতে সহযোগিতা করবে।

এ প্রকল্প শুধু শিক্ষকদের নয়, স্কুলের পরিচালনা পরিষদের কার্যক্রমকেও উন্নত করবে।

Share

আরও খবর