৯ নভেম্বর, বিনোদন ডেস্কঃ শুরু থেকেই পদ্মাবতী নিয়ে সৃষ্টি হচ্ছে নানারকম জটিলতা। গত কয়েকদিন ধরে এ সিনেমা নিয়ে বিতর্ক চরম আকার ধারণ করেছে। এবার রাজস্থানে এই সিনেমার মুক্তি নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়। রাজ্যটির প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি মুক্তি দিতে চাইছেন না পরিবেশকরা। ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে।

পরিবেশকরা বলছেন, যদি সিনেমাটিতে ইতিহাস বিকৃত করা হয়, তাহলে তারা এর পরিবেশন স্বত্ব নেবেন না। এ প্রসঙ্গে রাজস্থানের অন্যতম প্রধান পরিবেশক রাজ বংসাল সংবাদমাধ্যমে বলেন, ‘দেখা যাক শ্রী রাজপুত করনি সেনা ও সঞ্জয় লীলা বানসালি কোনো সমঝোতায় পৌঁছান কিনা। আমরা এর পরই এর পরিবেশন স্বত্ব কিনব।’ অন্যান্য পরিবেশকরাও বিষয়টি নিয়ে একই সুরে কথা বলছেন।

এদিকে জয়পুরের একটি রাজ পরিবারও পদ্মাবতী মুক্তির বিরুদ্ধে কথা বলেছেন। নরেন্দ্র সিং নামের রাজবংশীয় এক ব্যক্তি বলেন, ‘পদ্মাবতী নিয়ে অনেক প্রতিবাদ হয়েছে। এর মূল কারণ হলো এতে ইতিহাস বিকৃতি করা হয়েছে। যে প্রোমোগুলো সামনে আসছে, যে ধরনের প্রচারণা হচ্ছে, এ থেকে বোঝা যাচ্ছে এটি একজন মহারানির গল্প যিনি ১৬ হাজার নারীকে নিয়ে আগুনে আত্মাহুতি দিয়েছিলেন, সেই মহারানিকেই দেখানো হচ্ছে তিনি সবার সামনে ‘ঘুমর’ নাচছেন অথবা খিলজিকে নিয়ে এ ধরনের স্বপ্ন দেখছেন। সবকিছু যেভাবে তুলে ধরা হয়েছে তা একজন নারীর জন্য খুবই অপমানজনক, বিশেষ করে ইতিহাসে যার এমন আত্মত্যাগের ঘটনা রয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘রাজপুত সম্প্রদায়, হিন্দু সম্প্রদায়, দেশের যুব সম্প্রদায় এটি মেনে নেবে না। সিনেমাটির প্রযোজকের কাছে আমার অনুরোধ যত দ্রুত সম্ভব রাজপুত সম্প্রদায়ের প্রধান ব্যক্তি, ইতিহাসবিদদের নিয়ে সিনেমাটির একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করুন। এরপর যে দৃশ্যগুলো নিয়ে অভিযোগ ওঠে তা বাদ দিন। না হলে সিনেমাটি মুক্তি দিতে দেয়া হবে না, ভারতের কোথাও এটি চলতে দেয়া হবে না এবং বড় ধরনের সমস্যা তৈরি হবে।’

সূফী লেখক মালিক মুহম্মদ জায়সির লেখা চিতর দখলের গল্পের ওপর ভিত্তি করে পদ্মাবতী সিনেমার কাহিনি তৈরি হয়েছে। প্রকৃত ঘটনার ২০০ বছর পর গল্পটি লেখা হয়। সেই গল্প অনুসারে রানি পদ্মিনীর প্রতি আকৃষ্ট হন আলাউদ্দিন খিলজি। ফলস্বরূপ চিতরগড় দখলের চিন্তা করেন তিনি। পরবর্তীতে পরিত্রাণ পেতে আত্মহত্যার পথ বেছে নেন রানি।

সিনেমাটি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয় যখন করনি সেনা জানতে পারে, রানি পদ্মিনী ও আলাউদ্দিন খিলজির একটি রোমান্টিক দৃশ্য দেখানো হয়েছে। যদিও পরিচালক, অভিনয়শিল্পী ও পদ্মাবতী টিমের অন্যান্যরা এ ধরনের গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন।

পদ্মাবতী সিনেমাটি পরিচালনা করছেন সঞ্জয় লীলা বানসালি। এতে রানি পদ্মিনীর চরিত্রে অভিনয় করছেন দীপিকা পাড়ুকোন। আলাউদ্দিন খিলজি ও রাজা রাওয়াল রতন সিংয়ের ভূমিকায় দেখা যাবে রণবীর সিং ও শহিদ কাপুরকে। ১ ডিসেম্বর মুক্তি পাবে পদ্মাবতী।

Share

আরও খবর