মোঃ রমজানবৈশাখের কবিতা
মোঃ রমজান

চৈত্রের খাঁ খাঁ রোদে কূল শুকালো
হঠাৎ বৃষ্টিতে প্রকৃতিতে সাড়া ফেলল
আম্র মুকুলে ভরলো গাছের শাখ,
এলরে এলরে আবার পয়লা বৈশাখ।

মনে নতুনত্বের লাগল রে রঙ
কেউ পরিপাটি, কেউ সাজবে সং
বাঙালীত্বে যে জং ধরেছিল
সব ঝরে যাক,ঝরে যাক।
এলরে এলরে আবার পয়লা বৈশাখ।

পাঞ্জাবি আর লুঙ্গি ধুতি
লাল চুড়ি, ফিতে আর শাড়ি সুতি
খোঁপায় ফুল,গলে মালামতি
সাজসজ্জার জ্যোতিতে প্রকৃতি ভরে যাক, ভরে যাক
এলরে এলরে আবার পয়লা বৈশাখ।

মাটির খেলনা, মুড়ির মোয়া, মেলা
একতারার সুর আর নাগরদোলা
বাঁশির সুর, ঢোলের তাল, লাঠি-বলিখেলা
শিশু-কিশোররা হাসিতে মুখরিত
বাঙালীর সুর ছড়িয়ে যাক
এলরে এলরে আবার পয়লা বৈশাখ।

বাড়ির গিন্নী সির্নি পায়েস রাঁধে
ইলশে ভাজা, ভর্তা আর পানতার স্বাদে
পুরোনো হালখাতার হিসেব চুকে
নতুন হালখাতা খুলে যাক
এলরে এলরে আবার পয়লা বৈশাখ।

শুধু রঙিন পোশাকে নয় পোশাকি মন
শুধু পানতা ইলিশে নয় বর্ষবরণ
বাঙালীর সংস্কৃতি বাঙালীর মূল হোক
বিশ্ব বিস্তৃতি পেয়ে যাক,
বাঙালীর অস্তিত্ব আর বাঙালীপনা বেঁচে থাক
বছর ঘুরে আসুক আবার পয়লা বৈশাখ।

Share

আরও খবর