১৭ জানুয়ারি, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ১৩৭ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে জাপা নেতা মোরশেদ মুরাদ ইব্রাহীমের ছোট ভাই ফয়সাল মুরাদ ইব্রাহিম ও বেসিক ব্যাংকের প্রাক্তন এমডির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এ নিয়ে বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারির ঘটনায় ৬১তম মামলা হলেও আসামির তালিকায় নেই প্রতিষ্ঠানটির আলোচিত প্রাক্তন চেয়ারম্যান আব্দুল হাই বাচ্চু।

বুধবার রাজধানীর মতিঝিল থানায় দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সিরাজুল ইসলাম বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার বিষয়টি দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য নিশ্চিত করেছেন।

বেসিক ব্যাংক থেকে ঋণ হিসেবে তুলে ১৩৭ কোটি ১৪ লাখ ৬ হাজার ৯৮৩ টাকা আত্মসাতের মামলায় আসামি করা হয়েছে বে নেভিগেশন লিমিটেডের এমডি ফয়সাল মুরাদ ইব্রাহিম এবং ব্যাংকটির প্রাক্তন এমডি কাজী ফখরুল ইসলাম।

এর আগে গত ১০ জানুয়ারি চট্টগ্রামে বেসিক ব্যাংকের প্রায় ২৭৬ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে চট্টগ্রাম মহানগর জাপার আহ্বায়ক ও সংসদ সদস্য মাহজাবীন মোরশেদ এবং তার স্বামী মোরশেদ মুরাদ ইব্রাহীমসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করে দুদক। মামলা দুটিতে তাদের বিরুদ্ধে প্রায় ২৭৬ কোটি টাকা ঋণ নিয়ে তা পরিশোধ না করে আত্মসাৎ করার অভিযোগ আনা হয়েছে।

প্রায় সাড়ে ৪ হাজার কোটি টাকার বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারিতে ২০১৫ সালের ২১, ২২ ও ২৩ সেপ্টেম্বর তিন দিনে টানা ৫৬টি মামলা করে দুদকের অনুসন্ধান দলের সদস্যরা। রাজধানীর মতিঝিল, পল্টন ও গুলশান থানায় এসব মামলায় মোট আসামি করা হয় ১৫৬ জনকে। পরবর্তীতে আরো দুটি মামলা করেছিল দুদক। তবে কোনো মামলায় ব্যাংকের প্রাক্তন চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাচ্চুসহ পরিচালনা পর্ষদের কাউকে আসামি করা হয়নি।

Share

আরও খবর