বটতলা রঙ্গমেলা৩০ নভেম্বর, বিনোদন ডেস্কঃ দুই বছর পর আবারো শুরু হতে যাচ্ছে ‘বটতলা রঙ্গমেলা ২০১৬’। আগামী ১ ডিসেম্বর রাজধানীর নাটক সরনীর (বেইলী রোড) মহিলা সমিতিতে শুরু হবে ১০ দিন ব্যাপী এই উৎসব।

উৎসবে বাংলাদেশের ৭টি ও বিদেশের ৩টি নাটকের দল তাদের নাটক পরিবেশন করবে বলে জানিয়েছে আয়োজক কতৃপক্ষ।

উদ্বোধনী মঞ্চে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। উৎসবের উদ্বোধন করবেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন এমকে আরেফ, ফয়েজ জহির, আজাদ আবুল কালাম, নুনা আফরোজ।

১ ডিসেম্বর মঞ্চস্থ হবে বটতলার নতুন নাটক ‘ক্রাচের কর্নেল’র প্রথম মঞ্চায়ন। নাটকটির নির্দেশনায় রয়েছেন মোহাম্মদ আলী হায়দার। ২ ডিসেম্বর ভারতের কোচ বিহারের নাট্যদল কম্পাস’র নাটক ‘চুপ আদালত চলছে’, ৩ ডিসেম্বর যশোরের বিবর্তন’র মাত্বিং, ৪ ডিসেম্বর নাগরিক নাট্যাঙ্গনের ‘গহর বাদশা ও বানেছা পরী’, ৫ ডিসেম্বর ভারতের হাওড়ার নটধা’র নাটক ‘অথৈ’, ৬ ডিসেম্বর প্রাঙ্গনেমোর’র ‘কনডেমড সেল’, ৭ ডিসেম্বর জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘কারবালার জারি’, ৮ ডিসেম্বর আরণ্যক নাট্যদলের ‘দ্য জুবলী হোটেল’, ৯ ডিসেম্বর থিয়েটারের ‘মায়ানদী’, ১০ ডিসেম্বর ইরানের ক্রেইজি বডি গ্রুপের নাটক ‘দ্য মাড’ মঞ্চস্থ হবে।

উৎসব প্রসঙ্গে নির্দেশক মোহাম্মদ আলী হায়দার বলেন, ‘এবারের উৎসবে বিদেশি কিছু ভালো নাটক দর্শকরা উপভোগ করতে পারবেন । নটধা নামের হাওড়ার যে দলটি আসছে তাদের নাটক আমি দেখেছিলাম ভারতের বহরমপুরে। এত ভালো কাজ ওয়েস্ট বেঙ্গলের কোনো নাটকের দলের দেখিনি। নটধা’র নাটক অথৈ কলকাতা সহ ভারতের অনেক যায়গায় সমাদৃত হয়েছে। বর্তমান এই দলের কার্যক্রম দেখে সবাই ঈর্ষান্বিত। তখন আমরা বলেছিলাম এই দল আমাদের নাট্য উৎসবে আনব। আমি নিশ্চিত এদের প্রযোজনা দেখে বাংলাদেশের দর্শক চমকে যাবেন।’

‘কম্পাস কুচ বিহারের একটি নাটকের দল। ভালো কাজ করে। ওদের অনেক ভালো ভালো প্রযোজনা আছে তাই কম্পাস এ উৎসবে যোগ দিচ্ছে। আর ইরানের এই দলটি পেশাদার দল। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে তাদের প্রযোজনা নিয়ে ট্যুর করছে। আসাধারণ সব প্রযোজনা।’ বলেন মোহাম্মদ আলী হায়দার।

প্রতিদিন নাটক শেষে পরিচালকের সাথে দর্শকের রঙ্গ আড্ডা চলবে। প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টায় নাটক মঞ্চস্থ হবে। এছাড়া ৯ ডিসেম্বর শুক্রবার শিশুদের জন্য রয়েছে বিশেষ আয়োজন। সকাল ৯টায় আর্ট ক্যাম্প এবং সকাল ১১টায় শিশুদের জন্য বটতলার নাটক ‘মধুশিকারী’।

এ উৎসবে মঞ্চের একজন গুণীশিল্পীকে আজীবন সম্মাননা প্রদান করে থাকে। তারই ধারাবাহিকতায় ১০ ডিসেম্বর সমাপনী অনুষ্ঠানে আজীবন সম্মাননা প্রদান করা হবে অভিনেতা আলী যাকেরকে।

তাছাড়াও ঢাকার বাইরে যেসব নাট্যকর্মী নিভৃতে দীর্ঘদিন ধরে নাট্যচর্চা করে যাচ্ছেন তাদেরকেও সম্মাননা প্রদান করা হবে। ৮টি বিভাগ থেকে ৮ জন নাট্যকর্মীকে এ সম্মাননা দিবে বটতলা।

Share

আরও খবর