২০ জানুয়ারি, ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের খালি গায়ে মাছ শিকার কিংবা ঘোড়ার ওপর সওয়ারি হওয়ার ছবি প্রকাশ হওয়ার পর বিশ্বনেতাদের অনেকের মনেই হয়তো ঈর্ষা জাগিয়েছিল। চলতি সপ্তাহে ‘উন্মুক্ত বক্ষের’ পুতিন যা করেছেন তাতে হয়তো সেই ঈর্ষার আগুন আরো উস্কে দেবে। মাইনাস ৬ ডিগ্রি তাপমাত্রায় খোলা আকাশের নিচে বরফ শীতল পানিতে ডুব দিয়েছিলেন রুশ প্রেসিডেন্ট।

অর্খডক্স খ্রিষ্টানদের নিয়ম অনুযায়ী, প্রতি বছর যীশুর জন্ম উৎসব উপলক্ষে অনুসারীদের ব্যাপটাইজ করা হয়।

পাদ্রিদের আশীর্বাদ করা পানিতে স্নান করে ব্যাপটাইজ হতে হয়। আর এর মাধ্যমে ভক্ত পবিত্র ও পাপমুক্ত হয়। এর মাধ্যমে আত্মিক শক্তিও মেলে বলে বিশ্বাস অনুসারীদের। প্রতি বছর এই দিনটিতে রাশিয়ার বিভিন্ন স্থানে গির্জার পক্ষ থেকে অনুসারীদের জন্য এই স্নানের ব্যবস্থা করা হয়। এমনকি সাইবেরিয়ার মতো বেশ কিছু এলাকা রয়েছে যেখানে তাপমাত্রা মাইনাস ২২ ডিগ্রি থাকে সেখানও এই ব্যাপটিজম করা হয়।

রাশিয়ার টেলিভিশন ৬৫ বছরের পুতিনের বরফ শীতল পানিতে ডুব দেওয়ার অনুষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করেছে। এতে দেখা গেছে, রাজধানী মস্কো ২৫০ মাইল দূরে লেক সেলিজারে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছেন ঘিয়ে রঙের কোট পরিহিত পুতিন। পাদ্রীদের আর্শীবাদ করা ওই পানিতে নেমে তিনি ডুব দিয়ে উঠে যান।

পুতিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেশকভ জানিয়েছেন, যীশুর জন্ম উৎসবে এর আগেও পুতিন বরফ শীতল পানিতে স্নান করেছেন। তবে এবারই প্রথম তিনি প্রকাশ্যে এটি করেছেন।

নাক ধরে ডুব শেষ করে ওপরে ওঠার পর পোশাক পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন। এসময় তার কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল, ঠান্ডা বেশি কিনা। জবাবে পুতিন বলেন, ‘না, এটা বেশ চমৎকার।’

Share

আরও খবর