১৮ মার্চ, ইন্টারন্যাশনাল ডেস্কঃ ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসের অরলি বিমানবন্দরে বন্দুক হামলা হয়েছে।

বিমানবন্দরে এক ব্যক্তি এক সেনার কাছ থেকে বন্দুক ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে এবং পরে পুলিশের গুলিতে নিহত হয় ওই ব্যক্তি।

বিবিসি ও আলজাজিরা অনলাইনের ব্রেকিং নিউজে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

অরলি বিমানবন্দরের একাংশ থেকে লোকজনকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। গুলির শব্দ শোনার পর আতঙ্কিত হয়ে পড়েন যাত্রীরা। নিরাপত্তাকর্মীরা বিমানবন্দরের টার্মিনাল ঘিরে রেখেছে।

বিমানবন্দরে নিরাপত্তা বাহিনী অভিযান শুরু করেছে। বোমা নিষ্ক্রিয়কারী একটি দল এই অভিযানে যুক্ত হয়েছে।

মিরর অনলাইন জানিয়েছে, আর কোনো বিস্ফোরক দ্রব্য বা ওই ব্যক্তির কোনো সহযোগী আছে কিনা, তা খতিয়ে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

বিমানযাত্রীরা বিমানবন্দর থেকে তাদের টুইটার পেজে জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় শনিবার সকালে বিমানবন্দরের দক্ষিণ টার্মিনালে তারা গুলি চলার শব্দ শুনেছেন। পুলিশ তাদের বিমানবন্দর থেকে বের হয়ে যাওয়ার জন্য বলে।

প্যারিস পুলিশের মুখপাত্র এক টুইটে বিমানবন্দরে থাকা লোকজনের উদ্দেশে বলেছেন, ‘নিরাপত্তা অভিযান চলছে। নিরাপত্তা বেষ্টনী পার হবেন না। নির্দেশনা মেনে চলুন।’

ফ্লাইট ধরতে অন্য যাত্রীদের বিমানবন্দরে আসতে নিষেধ করা হয়েছে। বিমানবন্দরের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ‘পুলিশের বিশেষ অভিযান চলছে। তাদের নির্দেশনা মেনে চলুন। কেউ বিমানবন্দরে আসবেন না।’

একজন যাত্রী তার টুইটার পেজে লিখেছেন, দক্ষিণ টার্মিনালে গুলি চলেছে।

দেশজুড়ে সন্ত্রাসী হামলার মুখে ফ্রান্সে জরুরি অবস্থা জারি রাখা হয়েছে। গত মাসে ল্যুভর মিউজিয়ামে ছুরি হামলা চালানো এক ব্যক্তি পুলিশের গুলিতে নিহত হয়।

Share

আরও খবর