১৪ ডিসেম্বর, বিনোদন ডেস্কঃ বিমর্ষ তারিক আনাম খান। চুপচাপ একটি পিয়ানোতে হাত বুলাচ্ছেন তিনি। এ সময় নেপথ্য কণ্ঠে বলতে শোনা যায়, ‘তুমি জানতে চেয়েছিলে না এই পিয়ানোর মধ্যে কি আছে? এই পিয়ানোর মধ্যে আছে মায়া!’ দৃশ্যটি ‘পিয়ানো’ নামে একক একটি নাটকের।

বিজয় দিবস উপলক্ষে তরুণ নির্মাতা আবু হায়াত মামুদ নির্মাণ করেছেন ‘পিয়ানো’ নাটকটি। এটি রচনা করেছেন মাসুম শাহরীয়ার। এতে একজন যুদ্ধশিশুর চরিত্রে অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান।

নাটকের গল্প প্রসঙ্গে আবু হায়াত মামুদ বলেন, ‘ছোট্ট জেলা শহরে রাশেদের মিউজিক শপ। ঢোল তবলা, হারমোনিয়ম, ব্যাঞ্জো গিটার এইসব বাদ্যযন্ত্রের সঙ্গে হাতে গোনা কিছু এন্টিকও তার সংগ্রহে রয়েছে। পিতৃসূত্রে রাশেদ এই ব্যবসার মালিক হয়েছেন। তার বাবার নাম শাহেদুর রহমান। সম্ভ্রান্ত সংস্কৃতিমনা এক পরিবারের ছেলে। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়। যুদ্ধ পরবর্তীতে সহযোদ্ধা বন্ধুর মৃত্যুর সংবাদ জানাতে তার বাড়িতে গিয়ে বন্ধুর বীরাঙ্গনা সন্তানসম্ভবা বোনকে দেখে। এক দেশ প্রেমিক যোদ্ধার স্বরূপেই শাহেদ মেয়েটিকে বিয়ে করে। এরপর পাক হানাদারের ঔরসজাত হয়েও রাশেদ বড় হয় শাহেদের পরিচয়ে। কিন্তু শাহেদ আগেই ছিল বিবাহিত। রাশেদের মা তা জানত। কিন্তু আগের স্ত্রীকে নানা কারণে শাহেদ এই ঘটনা জানাতে পারেনি। এমন নানা জটিলতার মধ্য দিয়ে এগিয়েছে নাটকটির কাহিনি।’

গল্পে রাশেদ চরিত্রে অভিনয় করেছেন তারিক আনাম খান। এছাড়াও অভিনয় করেছেন তারিন, শেখ মাহবুবুর রহমান, নওশিন ইসলাম দিশা, আরুবা আফসান জারা প্রমুখ।

গত ৩-৪ ডিসেম্বর পুরান ঢাকার বিভিন্ন স্থানে নাটকটির দৃশ্যধারণের কাজ শেষ হয়েছে। চিত্রগ্রহণে ছিলেন নাহিয়ান বেলাল। ১৬ ডিসেম্বর রাত ৯টা ৫ মিনিটে এনটিভিতে নাটকটি প্রচারিত হবে বলেও জানান এই নির্মাতা।

Share

আরও খবর