দুখু সুমন” নারী “
দুঃখু সুমন

তোমার ভরা তনু-মন ছুঁয়ে-ছেনে-
প্রকৃতির আদিম সত্যি গেছি জেনে,
বন্দীত্ব ছাড়া কিছুই চাওনি সংসারী
তুচ্ছ বন্ধনের নিশ্ছিদ্র খাঁচা জিনে।

চেয়েছি তোমার মুক্ত আকাশ হতে-
তোমার উড়ুক্কু সৌন্দর্য আস্বাদিতে,
আমার আজন্ম আকাঙ্ক্ষা ভেঙ্গেচূরে-
তুমি চাও চরণে নূপুর-বেড়ি নিতে।

বলেছি তোমাকে তোমার ব্যক্তিত্বে-
স্বতন্ত্র সত্ত্বায় সবল স্ব-পা’য় দাঁড়াতে,
হেসে বলেছ, প্রকৃতি জন্মেছে কালে
পুরুষ প্রণয়ে আমৃত্যু অবনত হতে।

চেয়েছি তোমার গৃহের শোভা হতে-
শয়ন কক্ষ থেকে বাইরে অলিন্দতে
তুমি চাইলে আমাকে পুরুষ সাজিয়ে-
আলমিরার রাখা সুদৃশ্য পুতুল হতে!

আমি খুঁজেছি তোমার ভালোবাসা-
তুমি খুঁজেছো তোমার বসত-বাসা,
তনু-মনে কতোটা নিরাশ্রয় আমি-
বোঝনি আশ্রিতের সে নীরব ভাষা।

বুঝেছি অভিজ্ঞতা-সহজবোধ-জ্ঞানে-
সমস্ত সভ্যতার কররেখা গুনেগুনে,
আজন্ম তোমার সঙ্গে সম্পর্ক আমার-
ধর্ম-অর্থ-কাম-মোক্ষ’র সার-গহীনে।

Share

আরও খবর