২৮ জানুয়ারি, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ এ যেন অন্য এক শেখ হাসিনা। আবহমান বাংলায় রিকশাভ্যানে ঘুরে বেড়াচ্ছেন নাতি-নাতনি নিয়ে। তাকে মনে হয়নি বাংলাদেশের তিনবারের নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী, দুবারের বিরোধী দলের নেত্রী। দীর্ঘ ৩৭ বছর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী। প্রিয়জনদের নিয়ে তিনি এভাবেই টুঙ্গিপাড়ার গ্রামে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে বেড়ান। সঙ্গে ছিলেন ভাগনে রেদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ববি, তার স্ত্রী পেপি সিদ্দিক, নাতি-নাতনি নিলা ও কায়েস।

শেখ রেহানা পুত্র ববির স্ত্রী ও কন্যারা দারুণভাবে আপ্লুত হন এভাবে ঘুরতে পেরে। শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে হঠাৎ করেই ভ্যানে চড়ে বসেন প্রধানমন্ত্রী। নিরাপত্তারক্ষী ও সরকারি কর্মকর্তারা বিস্মিত। কিন্তু তাতে কী? শেখ হাসিনা তো জাতির জনকের কন্যা। টুঙ্গিপাড়ার এই গ্রামেই তার জন্ম। নিজের হাজারো স্মৃতির গ্রামটি ঘুরে দেখেন ভ্যানে চড়ে। হয়তো এ সময় তার স্মৃতির আয়নায় ধরা পড়ে অতীতের অনেক কিছু। এই গ্রামেই দাদা-দাদি, বাবা-মা, ভাইবোন আত্মীয় পরিজনের সঙ্গে শেখ হাসিনার অনেক সময় কেটেছিল।

বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে শুক্রবার বিকাল পর্যন্ত তিনি গ্রামের আত্মীয় পরিজন ও অন্যদের সময় দেন। প্রধানমন্ত্রীকে সবাই কাছে পান অন্যভাবে।

Share

আরও খবর