৬ অক্টোবর, অনলাইন ডেস্কঃ বিশ্ববিখ্যাত হোন্ডা কোম্পানি নতুন একটি প্রোটোটাইপ রোবট নির্মাণ করেছে, যা কিনা দুর্যোগে ত্রাণ কাজে সহায়তা করতে পারবে।

ই২-ডিআর নামের এই রোবটটি সম্প্রতি ভ্যানকুভারে অনুষ্ঠিত আইআরওএস ২০১৭ (ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স অন ইন্টেলিজেন্ট রোবটস অ্যান্ড সিস্টেমস) উপলক্ষে উন্মোচন করা হয়। আইইইই স্পেকট্রাম এর এক রিপোর্ট অনুযায়ী, কোম্পাটিটি দুই বছর আগেই একটি পরীক্ষামূলক দুর্যোগ ত্রাণ রোবট তৈরির ঘোষণা দিয়েছিল।

রোবটটি ১৮০ ডিগ্রি অ্যাঙ্গেলে ঘুরতে পারে এবং এটি তার হাতটিও ওপরে উঠাতে সক্ষম। হন্ডা ধারণা করছে, রোবটটি অয়্যারলেস সরঞ্জামের মাধ্যমেই কাজ করতে পারবে। তাই রোবটের হাতের ব্যবহার যত বেশিই হোক না কেন তাতে কোনো সমস্যা হবে না।

রোবটটি নিজে নিজেই ২ কিমি/ঘণ্টা হাঁটতে সক্ষম। এটি একটি ২০০ মিমি পাইপের ওপরে উঠতে পারবে এবং ধ্বংসাবশেষের মধ্য দিয়েও হাঁটতে পারবে। বৃষ্টিপাতের মধ্যেও ২৬ মিমি/ঘণ্টা গতিতে ২০ মিনিট সময় ধরে হাঁটতে পারবে এবং একটি উল্লম্ব মইয়ের ওপরে উঠতে পারে।

ই২-ডিআর নামের এই রোবটটি ১৬৮ সেন্টিমিটার (৫.৫ ফুট) লম্বা এবং এর ওজন ৮৫ কেজি (১৮৭ পাউণ্ড)। এটি মাত্র ২৫ সেমি (৯.৮ ইঞ্চি) পুরু। তাই এটি ৩০ সেমি (১১.৮ ইঞ্চি) বা বৃহত্তর ছোট ফাঁক দিয়েও যেতে সক্ষম। রোবটটি তার ১,০০০ডব্লিউএইচ ব্যাটারির মাধ্যমে পুরো ৯০ মিনিট সময় ধরে একটানা কাজ করতে পারবে। রোবটটি ১০ থেকে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস (১৪ থেকে ১০৪ ডিগ্রি ফারেনহাইট) তাপমাত্রায় কাজ করতে সক্ষম।

ই২-ডিআর এর মাথাটি দুটি লেজার রেঞ্জফিন্ডার, বেশ কয়েকটি ক্যামেরা এবং একটি ইনফ্রারেড লাইট প্রজেক্টর দ্বারা গঠিত। রোবট এর হাতেও ক্যামেরা এবং একটি থ্রিডি ক্যামেরা আছে, যা প্রতিটি হাতের সঙ্গেই সংযুক্ত।

যদিও এসব বৈশিষ্ট্যগুলো এখনও পর্যন্ত চমৎকার চিত্তাকর্ষক বলেই মনে হচ্ছে, তবে হোন্ডা বলেছে যে, ই২-ডিআর হল একটি প্রোটোটাইপ রোবট এবং এটিকে আসলে কার্যকর এবং টেকসই করতে আরো অনেক কিছু যোগ করতে হবে।

কোম্পানিটি বেশ কয়েক বছর ধরেই রোবট তৈরির লক্ষ্যে কাজ করে আসছে। তবে রোবটটির চূড়ান্ত মডেলটি কবে নাগাদ উন্মোচিত হতে পারে সে বিষয়ে কোম্পানিটি কোনো মন্তব্য করেনি।

তথ্যসূত্র : দ্য ভার্জ

Share

আরও খবর