২৭ অক্টোবর, স্পোর্টস ডেস্কঃ এ সপ্তাহে ডব্লিউটিএ ফাইনালের পর টেনিস থেকে অবসর নেবেন পাঁচবারের গ্র্যান্ড স্লাম চ্যাম্পিয়ন সুইস তারকা মার্টিনা হিঙ্গিস।

৩৭ বছর বয়সি হিঙ্গিস এ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো অবসরের ঘোষণা দিলেন। প্রথমবার অবসরের কথা জানিয়েছিলেন ২০০৩ সালে। আবার ফিরে এসে দ্বিতীয়বার অবসরের কথা জানান ২০০৭ সালে।

হিঙ্গিস এ বছর উইম্বলডন ও ইউএস ওপেনে মিশ্র দ্বৈতের শিরোপা জিতেছেন। পাশাপাশি দ্বৈত র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান পুনরুদ্ধার করেছেন।

অবসরের ঘোষণা দিয়ে কাল সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হিঙ্গিস লিখেছেন, ‘ভাবতেই অবাক লাগছে ২৩ বছর আগে পেশাদার টেনিস শুরু করেছিলাম। এর পরে এমন অনেক মৌসুম এসেছে, যখন পেশাদার আর ব্যক্তিগত দুই দিক থেকেই অনেক কিছু পেয়েছি। তবে আমার বিশ্বাস এবার আমার অবসরের সময় হয়েছে। সিঙ্গাপুরে এই টুর্নামেন্টে শেষ ম্যাচ খেলার পরেই অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমি।’

১৯৯৬ সালে উইম্বলডনের দ্বৈতে হেলেনা সুকোভার সঙ্গে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ইতিহাস গড়েন হিঙ্গিস। কনিষ্ঠতম খেলোয়াড় হিসেবে গ্র্যান্ড স্ল্যাম শিরোপা জয়ের কীর্তি গড়েন। তখন তার বয়স ছিল মাত্র ১৫ বছর। ১৯৯৭ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে একক র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ওঠেন।

সে বছর তিনি জেতেন অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, উইম্বলডন এবং ইউএস ওপেন। ১৮৮৭ সালের পর কনিষ্ঠতম খেলোয়াড় হিসেবে অল ইংল্যান্ড ক্লাবে এককে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কীর্তি গড়েন। এরপর তিনি আর দুটি গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জিতেছেন, ১৯৯৮ ও ১৯৯৯ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন।

অ্যাঙ্কেলের চোটের কারণে ২০০৩ সালে মাত্র ২২ বছর বয়সে অবসর নিয়েছিলেন হিঙ্গিস। তখন বলেছিলেন, ‘টেনিসে আর ফেরার কোনো ইচ্ছে নেই।’ টেনিসের টানে অবশ্য ফিরে এসেছিলেন তিন বছর পরই। কিন্তু ২০০৭ সালে ড্রাগ নেওয়ার অভিযোগ উঠলে আবার অবসরের ঘোষণা দেন। ছয় বছর পর ফের হিঙ্গিসের প্রত্যাবর্তন হয় ২০১৩ সালে।

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন।

Share

আরও খবর