প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা২০ মে, ডেস্ক রিপোর্টঃ প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের যথোপযুক্ত সেবা দিতে জাতীয় প্রতিবন্ধী উন্নয়ন ফাউন্ডেশনের কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে উপজেলা পর্যন্ত বিস্তৃতির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে আজ জাতীয় প্রতিবন্ধি ফাউন্ডেশনের দ্বিতীয় বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব একেএম শামীম চৌধুরী সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান। বাসাস।

তিনি বলেন, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী সরকারি ভাতাপ্রাপ্ত শারীরিক প্রতিবন্ধী সুবিদাভোগীর সংখ্যা বাড়ানোর ঘোষণা দিয়ে বলেন, আগামী আর্থিক বছর থেকে প্রতিবন্ধীরা ৫শ’ টাকা করে মাসিক ভাতা পাবেন এবং সুবিধাভোগীর সংখ্যা ৪ লাখ থেকে ৬ লাখে উন্নীত হবে। বর্তমানে দেশের ৪ লাখ প্রতিবন্ধী সরকারের কাছ তেকে প্রতি মাসে সাড়ে ৩শ’ থেকে ৫শ’ টাকা করে ভাতা পাচ্ছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের কল্যাণ নিশ্চিত করতে সরকারি উদ্যোগে সহায়তা করতে সমাজের স্বচ্ছল ব্যক্তিদের এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।
এক্ষেত্রে শেখ হাসিনা বেসরকারি উদ্যোগে শারীরিক প্রতিবন্ধীদের কল্যাণে তহবিল সংগ্রহের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশী শারীরিক প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের কৃতিত্বের কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী তাদের খেলাধুলার চর্চার জন্য জমি বরাদ্দ দিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দেন।

প্রেস সচিব বলেন, বৈঠকে প্রতিবন্ধীদের জন্য কমিউনিটি ক্লিনিক ভিত্তিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবেন। কর্মজীবী প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য বিভাগীয় পর্যায়ে ডরমেটরি নির্মাণেরও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

বৈঠকে জানানো হয়, রাজধানীর মিরপুরে জাতীয় প্রতিবন্ধী কমপ্লেক্স নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। ৮৪ কোটি টাকায় এই কমপ্লেক্স নির্মিত হচ্ছে। এছাড়াও বর্তমানে দেশব্যাপী শারীরিক প্রতিবন্ধীর জন্য ১০৩টি সেবা ও সহায়তা কেন্দ্র রয়েছে।

Share

আরও খবর