১৮ এপ্রিল, লাইফস্টাইল ডেস্কঃ মুখের ত্বকে ব্রণের সমস্যা খুবই বিব্রতকর। এটা ত্বকে দাগ কালো দাগ তৈরি করে। শুধু বয়ঃসন্ধিতে নয়, অতিরিক্ত গরমে যেকোনো বয়সেই ব্রণ হতে পারে। বিশেষ করে গরম কালে তৈলাক্ত ত্বকে ব্রণ একটা বড় সমস্যা। কিছু কিছু খাবার শরীরে হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট করার কারণে ব্রণ হয়। সম্ভব হলে গরম কালে এই তিন খাবার এড়িয়ে যেতে হবে।

সুগারযুক্ত খাবার :
ত্বক ভালো রাখার জন্য ডায়েটে যদি বদল আনতে চান তাহলে প্রথমেই ডায়েট থেকে বাদ দিন প্রসেসড সুগারযুক্ত খাবার। প্রসেসড সুগার রক্তে ইনসুলিনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়ার পাশাপাশি টেস্টোস্টেরনের মাত্রাও বাড়িয়ে দেয়। হরমোনের ভারসাম্য নষ্ট হলে ত্বকে সিবাম উৎপাদন বেড়ে যায়। যার ফলে ডিপ সিস্টিক একনি দেখা দেয় মুখের ত্বকে। যা যেমন বেশ যন্ত্রণাদায়ক, তেমনই দাগ রেখে যায় অনেক সময়।

দুগ্ধজাত দ্রব্য :
যদি আপনার ল্যাকটোজে অ্যালার্জি না থাকে, তাহলেও ডেয়ারি প্রডাক্ট ত্বকের ক্ষতি করতে পারে। ডেয়ারি প্রডাক্টের প্রভাবে অ্যাকনে হয় তা স্পষ্ট না জানা গেলেও অনেক ক্ষেত্রেই ডায়েট থেকে দুধ বা দুগ্ধজাত খাবার বাদ দিয়ে ব্রণের সমাধান করা সম্ভব। যদি খুব বেশি ব্রণের সমস্যায় ভোগেন, তা হলে প্রথমে এক থেকে তিন মাস ডায়েট থেকে দুগ্ধজাত খাবার বাদ দিয়ে দিন।

যদি দেখেন এতে ত্বকের উল্লেখযোগ্য উন্নতি হচ্ছে তাহলে বুঝতে হবে দুগ্ধজাত খাবারের কারণেই আপনার ব্রণের সমস্যা। আর যদি তেমন কোনো উন্নতি না হয় তা হলে বুঝতে হবে অন্য কোনো কারণ রয়েছে এর পিছনে।

ডিম :
দুধের মতোই ডিমও অনেক সময় ত্বকের সমস্যার কারণ হতে পারে। যদি আপনার ডিম সত্ত্বেও ডিম খান তা শরীরের রোমকূপে প্রদাহ সৃষ্টি করবে। একনি, একজিমা বা সোরিয়াসিসের মতো সমস্যা দেখা দেবে। ত্বকের যত্ন নিতে ডায়েটে আনপ্রসেসড খাবার ও প্রচুর জল থাকতে হবে। তবে যদি ডায়েটে বদল আনতে চান তাহলে এক সঙ্গে পুরো ডায়েট বদলে না ফেলে একে একে বদল আনুন।

Share

আরও খবর