৯ মার্চ, লাইফস্টাইল ডেস্কঃ আবহাওয়ার সঙ্গে ফ্যাশনের সম্পর্ক ওতপ্রোতভাবে জড়িত। বিশেষ করে আমাদের মতো গ্রীষ্মপ্রধান দেশে পোশাক বাছাই করার আগে অবশ্যই সেটি আবহাওয়া উপযোগী কি না, তা মাথায় রাখতে হবে। আর গরমের বাতাস বইতে শুরু হতেই ফ্যাশনে আসতে শুরু করেছে পরিবর্তন। অনেকেরই ধারণা যে এই গরমে কেবল মেয়েদের ফ্যাশনের আনুষাঙ্গিকেই পরিবর্তন আসে। এই ধারণাটি ভুল।

ছেলেদের ফরমাল লুক থেকে শুরু করে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে পর্যন্ত তারা তাদের নিজেদের ফ্যাশনে আনে পরিবর্তন। গরমের দিনে পোশাক অবশ্যই হতে হবে আরামদায়ক ও স্বস্তির।

ছেলেদের পোশাকের জন্য গরমের জন্য সবচেয়ে আরামদায়ক হবে হালকা রঙের টি-শার্ট। তবে শার্ট যে একেবারেই বেমানান তা কিন্তু নয়। হালকা সুতির শার্টও হতে পারে আপনার গরমের স্টাইলিশ লুক। ব্লু ফেড জিন্সের সাথে স্নিকার পায়ে দিয়ে ক্যাজুয়াল ফরমাল লুক আনতে পারেন।

ট্রেন্ডি ওয়ার্ল্ডের ছেলেরা গরমের ট্রেন্ড হিসেবে বেছে নিতে পারেন ঢিলেঢালা কার্গো বা থ্রি-কোয়ার্টার এবং সঙ্গে হাফ হাতা শার্ট বা টিশার্ট। ব্লক, বাটিক বা টাইডাই করা সুতির হাফ হাতা শার্ট চলতে পারে ফ্যাশনের ট্রেন্ডে। পরতে পারেন ফতুয়াও। জিন্সের ক্ষেত্রে ন্যারো কাটের বদলে স্ট্রেইট কাটের জিন্স হোক এবার আপনার নিউ লুক! আরামের জন্য বেছে নিতে পারেন গ্যাবার্ডিনের প্যান্টও। বাসায় পরার জন্য থ্রি-কোয়ার্টার প্যান্টও কিনে রাখতে পারেন। হাল ফ্যাশনে এখন গ্রামীণ চেক থ্রি-কোয়ার্টার প্যান্ট খুব চলছে।

যারা চাকরি করেন তারা পরতে পারেন হাফহাতা সুতি বা ব্লকের শার্ট, পোলো শার্ট অথবা ফতুয়া সঙ্গে স্ট্রেইট কাটের জিন্স। তাছাড়া ফরলাম পোশাক তো রয়েছেই। প্যান্টের বেলায় বেছে নিতে পারেন গাঢ় ধূসর, হালকা ধূসর, অফহোয়াইট, বাদামি বা বিস্কিট রং। এই রঙের প্যান্টগুলো পরতে পারবেন যেকোনো শার্টের সঙ্গে। শার্ট পরতে পারেন একরঙা বা সুতির চেক।

গরমের সময় উত্‍সবের পোশাক বলতে ফতুয়া বা পাঞ্জাবীই প্রাধান্য পায় বেশি। হাতের কাজ করা ফতুয়া বা পাঞ্জাবী হতে পারে আপনার উত্‍সবের পোশাক। সঙ্গে পরুন জিন্স বা একরঙা ট্রাউজার। এতে গরমে যেমন আরাম পাবেন, তেমনি আপনাকে দেখে চোখ জুড়াবে সবার!

রোদে যাওয়ার আগে একটা রোদচশমা পরে নিন এবং সঙ্গে ছাতা নিন। বডি স্প্রে লাগিয়ে নিলে ঘামের গন্ধ নিয়ে চিন্তা থাকবে না। একটা ছোট তোয়ালে বা রুমাল সঙ্গে রাখুন। পানির বোতল থাকতে পারে সঙ্গে। টি-শার্ট তো গরমেই উপযুক্ত পোশাক। পায়ে থাকতে পারে মোকাসিন বা স্নিকার। কেউ আরাম পেলে দুই ফিতার স্যান্ডেলও পরতে পারেন।

Share

আরও খবর