১৯ মার্চ, নিজস্ব প্রতিনিধিঃ নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, কুমিল্লা সিটি করপোরেশন (কুসিক) নির্বাচন আমাদের ইসির জন্য এক কঠিন পরীক্ষা। এ পরীক্ষায় আমাদের উত্তীর্ণ হতেই হবে।

তিনি বলেন, আসন্ন কুসিক নির্বাচনে কমিশনের কোনো কর্মকর্তা এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কারো বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলা বা শৈথিল্যতা বরদাশত করা হবে না। এক্ষেত্রে গাফিলতি হলে বিন্দুমাত্র ছাড় দেওয়া হবে না।

শনিবার কুমিল্লা টাউন হল মিলনায়তনে আসন্ন কুসিক নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীদের সঙ্গে নির্বাচনী আচরণবিধি ও আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

সভায় মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে বক্তব্য দেওয়ার সময় আওয়ামী লীগের প্রার্থী আঞ্জুম সুলতানা সীমা ও বিএনপির প্রার্থী মনিরুল হক সাক্কু প্রায় একই সুরে কথা বলেন। তারা দুজনই সুষ্ঠু নির্বাচন প্রত্যাশা করেন এবং ভোটকেন্দ্রের নিকট যেন বহিরাগতরা যেতে না পারে সে বিষয়ে নির্বাচন কমিশনের দৃষ্টি কামনা করেন।

অবশ্য সাক্কু তার বক্তব্যে প্রতিটি ওয়ার্ডে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের দাবি করেন।

তিনি অভিযোগ করেন, সদর দক্ষিণের ধনাইতরী এলাকায় কুদ্দুস নামে তার এক কর্মী জামিনে থাকলেও পুলিশ ধরে নিয়ে হয়রানি করছে।

তবে সাক্কুর এই অভিযোগের উত্তরে সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি মো. নজরুল ইসলাম বলেন, এ অভিযোগ সত্য নয়।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসক মো. জাহাংগীর আলমের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন- নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম, ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, নির্বাচন কমিশনের সচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ, জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেন।

স্বাগত বক্তব্য দেন রিটার্নিং অফিসার ও কুমিল্লার আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা রকিব উদ্দিন মন্ডল।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন বিজিবি কুমিল্লার সেক্টর কমান্ডার কর্নেল গাজী মো. আহসানুজ্জামান, ডিজিএফআইয়ের অধিনায়ক আ ফ ম আতিকুর রহমান, র‌্যাব-১১ এর ক্রাইম প্রিভেনশন কোম্পানি-২ এর অধিনায়ক মেজর মো. মোস্তফা কায়জার, কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের ওসি মোহাম্মদ আবু সালাম মিয়া ও সদর দক্ষিণ মডেল থানা পুলিশের ওসি মো. নজরুল ইসলাম।

মতবিনিময় সভায় নির্বাচন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় এবং অভিযোগ তুলে ধরে বক্তব্য দেন মেয়র, কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থীরা।

মেয়র প্রার্থীদের মধ্যে সীমা ও সাক্কু ছাড়াও বক্তব্য দেন জেএসডি মনোনীত প্রার্থী শিরিন আক্তার ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মেজর (অব.) মামুনুর রশীদ।

Share

আরও খবর