৩০ এপ্রিল, বিনোদন ডেস্কঃ আবৃত্তিশিল্পী ও মুক্তিযোদ্ধা কাজী আরিফ মারা গেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

বাংলাদেশ সময় শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে তার লাইফ সাপোর্ট খুলে নিয়ে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন বলে নিউ ইয়র্কে অবস্থানরত বাংলাদেশ আবৃত্তি সমন্বয় পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আহকাম উল্লাহ জানান।

পেশায় স্থপতি কাজী আরিফের বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তার স্ত্রী প্রজ্ঞা লাবণীও একজন আবৃত্তি শিল্পী। দুই মেয়ে রয়েছে তাদের।

মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক কাজী আরিফের মৃত্যু শোক প্রকাশ করেছেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

দীর্ঘদিন থেকে অসুস্থ কাজী আরিফের হার্টের ভাল্ব অকেজো হলে তাকে ম্যানহাটনের মাউন্ট সিনাই সেন্ট লিওক্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত মঙ্গলবার ভাল্ব পুনঃস্থাপন এবং আর্টারিতে বাইপাস সার্জারি করা হয়। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে নেওয়া হয়।

তার সঙ্গে থাকা মেয়ে আনুশকা শুক্রবার  বলেন, “চিকিৎসকরা বলেছেন, তিনি ক্লিনিক্যালি ডেড। আগামীকাল সকালে তার লাইফ সাপোর্ট খোলা হবে।”
কাজী আরিফের জন্ম ১৯৫২ সালের ৩১ অক্টোবর, ফরিদপুরের রাজবাড়ীতে। বেড়ে উঠেছেন চট্টগ্রাম শহরে। পড়াশোনা, রাজনীতি, শিল্প-সাহিত্য এসব কিছুরই হাতেখড়ি হয় সেখানে। আবৃত্তির পাশাপাশি লেখালেখিও করতেন তিনি।

১৯৭১ সালে ১ নম্বর সেক্টরের মেজর রফিকুল ইসলামের কমান্ডে সরাসরি মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। এরপর যুদ্ধ শেষে বুয়েটে লেখাপড়া শুরু করেন আর সাথে সমান তালে এগিয়ে যেতে থাকে তার শিল্প, সাহিত্য, সংস্কৃতি। তিনি বাংলাদেশের আবৃত্তিশিল্পের অন্যতম রূপকার।

Share

আরও খবর